জাতীয়

আল জাজিরার প্রতিবেদন ভিত্তিহীন: আইএসপিআর

আল জাজিরায় ‘অল দ্য প্রাইম মিনিস্টার্স ম্যান’ শিরোনামে প্রচারিত প্রতিবেদনকে ভ্রান্ত ও ভিত্তিহীন বলে তীব্র নিন্দা জানিয়েছে বাংলাদেশ সেনা সদর দপ্তর। মঙ্গলবার (২  ফেব্রুয়ারি) রাতে প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের আন্তঃবাহিনী জনসংযোগ পরিদপ্তরের (আইএসপিআর) সহকারী পরিচালক রাশেদুল আলম খানের স্বাক্ষর করা সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

উক্ত বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, সম্প্রতি দেশকে অস্থিতিশীল করার লক্ষ্যে একটি গ্রুপ সক্রিয় হয়ে উঠেছে। তাদের মধ্যে ওই প্রতিবেদনে ডেভিড বার্গম্যান দেখা গেছে, যিনি আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালে দণ্ডপ্রাপ্ত; আরো দেখা গেছে জুলকার নাইন শায়ের খান সামিকে, যিনি মাদক গ্রহণের দায়ে বাংলাদেশ মিলিটারি একাডেমি থেকে বহিষ্কার হয়েছিলেন; এ ছাড়া তাসনিম খলিল রয়েছেন ওই প্রতিবেদনে, যিনি অখ্যাত নেত্রনিউজের সম্পাদক।

বিজ্ঞপ্তিতে আরো বলা হয়েছে, আল-জাজিরার মতো একটি আন্তর্জাতিক সংবাদ মাধ্যম কীভাবে এমন অসৎ উদ্দেশ্য প্রণোদিত এবং অপরাধের সঙ্গে জড়িত ব্যক্তিদের সঙ্গে নিয়ে কাজ করে তা স্পষ্ট নয়। এ ছাড়া ওই ভিডিওতে বিভিন্ন অফিসিয়াল, সামাজিক এবং ব্যক্তিগত অনুষ্ঠানের ছবি প্রযুক্তির মাধ্যমে এডিট করে একসঙ্গে করে দেখানো হয়েছে।

একইসঙ্গে ইসরায়েল থেকে বাংলাদেশ সেনাবাহিনী মোবাইল ইন্টারসেপ্টর ডিভাইস কিনেছে এমন মিথ্যা তথ্যের ব্যাপারে প্রতিবাদ জানানো হয়েছে বিজ্ঞপ্তিতে। প্রকৃত ঘটনা সম্পর্কে বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, জাতিসংঘের শান্তিরক্ষা মিশনে ব্যবহারের জন্য হাঙ্গেরি থেকে ওই ডিভাইস কেনা হয়। যেহেতু ইসরায়েলের সঙ্গে বাংলাদেশের কোনো কূটনৈতিক সম্পর্ক নেই, তাই সেখান থেকে বাংলাদেশের সেনাবাহিনীর কোনো কিছু কেনার সুযোগও নেই।

এতে বলা হয়, বাংলাদেশ সেনাবাহিনী সর্বদা বাংলাদেশ সরকারের প্রতি শ্রদ্ধাশীল ছিল এবং থাকবে এবং আমাদের প্রিয় মাতৃভূমির দেশ গঠনের প্রয়াসে অবদান রাখবে বলেও এতে উল্লেখ করা হয়। ভুয়া উস্কানিমূলক সংবাদ প্রচার করে বার বার সমালোচনার মুখে পড়েছে কাতারভিত্তিক মিডিয়া নেটওয়ার্ক আল-জাজিরা। ভুয়া খবর প্রচারের অভিযোগে কয়েকবার বিশ্বের বিভিন্ন দেশ সম্প্রচার বন্ধ করে দেয় এই সংবাদ মাধ্যমকে।

২০০৯ সালের পর শেখ হাসিনা সরকারের আমলে বাংলাদেশের নানা ঘটনা নিয়ে অপপ্রচার করে চলেছে আল জাজিরা। তাদের সংবাদ পরিবেশনায় বর্তমান সরকার সম্পর্কে নেতিবাচক খবর সবসময় স্থান জুড়ে বসেছে। একই বছর তিনজন ব্যক্তির গুম হওয়ার সাথে বাংলাদেশের একজন উর্দ্ধতন নিরাপত্তা ও সামরিক কর্মকর্তার যোগসাজশ নিয়ে মিথ্যা প্রতিবেদন প্রকাশ করে এই ওয়েবসাইটটি। আসলে এই মিডিয়ার বিরুদ্ধে ক্রমাগত সন্ত্রাসবাদে পৃষ্ঠপোষকতা ও মদদ দানের অভিযোগ রয়েছে আলজাজিরার বিরুদ্ধে।

বাংলাদেশ সম্পর্কে আল জাজিরা নিউজ চ্যানেলে নেতিবাচক প্রতিবেদন প্রকাশ করায় আজ মঙ্গলবার (২ ফেব্রুয়ারি) পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের ভেরিফায়েড ফেসবুক পেজে বিবৃতি দেওয়া হয়েছে। বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ‘আল জাজিরা নিউজ চ্যানেলের প্রচারিত প্রতিবেদনটি মিথ্যা ও মানহানিকর। এটি বানোয়াট ও উদ্দেশ্যপ্রণোদিত বিভ্রান্তিকর সিরিজ, যা উগ্রবাদী সংগঠন জামায়াতে ইসলামীর সঙ্গে কুখ্যাত ব্যক্তিদের যোগসাজশে রাজনৈতিক মদতপুষ্ট অপপ্রচার বলে স্পষ্ট। একাত্তরে স্বাধীন রাষ্ট্র হিসেবে প্রতিষ্ঠার পর থেকেই গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশের প্রগতিশীল এবং ধর্মনিরপেক্ষ নীতির বিরোধিতা করছে চ্যানেলটি।’

কাতারভিত্তিক আন্তর্জাতিক গণমাধ্যম আল-জাজিরা প্রতিষ্ঠার শুরু থেকেই জঙ্গিবাদী রাজনীতিকে সহায়তা করে আসছে। মিথ্যা ও অসত্য তথ্য দেওয়ায় দায়ে এরইমধ্যে বিশ্বের বেশ কয়েকটি দেশে টিভি চ্যালটির সম্প্রচার বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।

এমন আরো তথ্য পেতে চোখ রাখুন: http://acebook.com/rajtvbd

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button