শিক্ষা

এসএসসি ও এইচএসসির কী হবে? উৎকণ্ঠায় ৪০ লাখ ছাত্রছাত্রী

প্রতি বছর ১ ফেব্রুয়ারি এসএসসি ও এপ্রিলের শুরুতে এইচএসসি পরীক্ষা শুরু হয়। তবে করোনা মহামারির কারণে চলতি বছরের এসএসসি পরীক্ষা আগামী জুনে এবং এইচএসসি ও সমমান পরীক্ষা জুলাই-আগস্টে নেওয়ার কথা রয়েছে। আবার সরকারের এমন চিন্তাও আছে যে করোনা সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে না আসা পর্যন্ত পরীক্ষা নেওয়া হবে না। আবার করোনা কবে নিয়ন্ত্রণে আসবে তা-ও কেউ বলতে পারছে না। অভিভাবক, শিক্ষার্থী ও শিক্ষকদের প্রশ্ন, তাহলে চলতি বছরের এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষা কবে হবে, সরকারের চিন্তা কী?

গতবছরের এসএসসি পরীক্ষা যথাসময়ে অনুষ্ঠিত হলেও এইচএসসি পরীক্ষা শুরু হবার ১৫ দিন আগেই শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ হয়ে যায়, স্থগিত করা হয় পরীক্ষা। কিন্তু করোনা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের অপেক্ষায় কেটে যায় মাসের পর মাস। শেষ পর্যন্ত কোনো ধরণের পরীক্ষা ছাড়াই উত্তীর্ণ ফল পায় শিক্ষার্থীরা। চলতি বছর এসএসসি ও এইচএসসি মিলিয়ে ৪০ লাখ পরীক্ষার্থী এই গুরুত্বপূর্ণ দুটি পরীক্ষায় অংশ নেওয়ার কথা। এসব শিক্ষার্থী এবং এদের অভিভাবক মিলিয়ে কোটি মানুষের মধ্যে উদ্বেগ-উৎকণ্ঠা। কী হবে এই পরীক্ষার?

তথ্য অনুযায়ী, গতবছর যথাসময়ে এসএসসি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। কিন্তু এবার যারা এসএসসি-এইচএসসি পরীক্ষা দেবে তাদের তো গত এক বছরে কোনো পাঠদানই হয়নি। স্কুল-কলেজের ছায়া পর্যন্ত দেখেনি। অভিভাবক ও শিক্ষকদের বক্তব্য, যদি কোনো ধরনের পাঠদান ছাড়া পরীক্ষা হয় তাহলে পরীক্ষার খাতায় এরা কী লিখবে? আবার যদি এদের বিষয়ে অটোপাসের চিন্তা করা হয় তাহলে কিসের ভিত্তিতে এসএসসি পরীক্ষার্থীদের অটোপাস দেওয়া হবে?

বিদ্যমান ছুটি ঘোষণা অনুযায়ী করোনা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে এলে আগামী ২৩ মে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খুলে দেওয়া হলে এসএসসি পরীক্ষার্থীদের ৬০ দিনের সিলেবাস শেষ করতে সময় যাবে আগামী ২৩ জুলাই। এরপর দুই সপ্তাহ সময় দিয়ে পরীক্ষার রুটিন ঘোষণা করা হলেও আগস্ট মাসে পরীক্ষা নিতে হবে। একইভাবে এইচএসসি পরীক্ষাও পিছিয়ে যাবে। তবে এ বিষয়ে বোর্ডের সচিব ইত্তেফাককে বলেন, এ ক্ষেত্রে আরো দুই-এক মাস পিছিয়ে যেতে পারে।

এমন আরো তথ্য পেতে চোখ রাখুন: https://www.facebook.com/rajtvbd

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button