স্বাস্থ্য

চিকিৎসকরা কি প্রণোদনা পাবেন ? যা বললেন অধ্যাপক ডাঃ এ বি এম আব্দুল্লাহ

যেসব চিকিৎসক, নার্স ও অন্যান্য স্বাস্থ্যকর্মী কোভিড-১৯ রোগীদের চিকিৎসা করেছেন, সরকারের প্রতিশ্রুতি সত্ত্বেও তাঁরা এখন পর্যন্ত প্রণোদনা ভাতা পাননি। বিভিন্ন মন্ত্রণালয় ও দপ্তরের মধ্যে চিঠি চালাচালি করতেই ছয় মাস চলে গেল। কবে তাঁরা প্রণোদনা পাবেন, সে বিষয়েও কেউ নিশ্চিত করে কিছু বলতে পারছেন না। শেষমেশ এই বিষয়ে মুখ খুললেন কিংবদন্তী চিকিৎসক ও মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর ব্যক্তিগত চিকিৎসক অধ্যাপক ডাঃ এবিএম আব্দুল্লাহ। সম্প্রতি রাজ টিভিকে দেয়া এক একান্ত সাক্ষাতকারে এই বিষয়ে নিজের ভাবনা তুলে ধরেন তিনি।

তিনি বলেন” গতবার যখন করোনা মহামারী শুরু হয় আমি নিজে কিন্তু মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর সাথে আলোচনা করি, এবং তিনি কিন্তু ঘোষণা দিয়েছেন যে তিনি প্রণোদনা দিবেন। আপনি একটি জিনিস লক্ষ্য করবেন সারা পৃথিবীতে যত চিকিৎসক করোনার সেবা দিতে গিয়ে মারা গিয়েছেন, আমাদের তার থেকেও বেশি চিকিৎসক মারা গেছেন। এটা আসলে খুবই দুঃখজনক।

তিনি আরো বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী যে ঘোষণা দিয়েছেন তা যেন আলোর মুখ দেখে যাতে এটা বাস্তবায়ন করা হয় তার জন্য স্বাস্থ্যমন্ত্রনালয় বলেন প্রসাশন বলেন দ্রুত একটি পদক্ষেপ নেয়া দরকার। ডাক্তারদের পাশাপাশি নার্স ও অন্যান্য চিকিৎসকরা নিজের জীবন বাজি রেখে পরিবার -স্বজনদের মায়া ত্যাগ করে অনবরত চিকিৎসা সেবা দিয়ে যাচ্ছে।

তিনি আরো যোগ করেন” করোনায় অনেক চিকিৎসক ইতোমধ্যেই প্রাণ দিয়েছেন। তাদেরও তো পরিবার -পরিজন রয়েছে, তাই তাদের কথা মাথায় রেখে জরুরী ভিত্তিতে এটার একটা সমাধান করা দরকার। যাতে তার ন্যায্য পাওনা পেতে পারেন এই ব্যপারে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেয়া। আমার যদি সুযোগ হয় তাহলে আমি আমার ব্যাক্তিগত পর্যায় থেকে সর্বোচ্চ চেষ্টা করে যাব”

পুরো ভিডিওটি দেখতে ক্লিক করুন: https://fb.watch/5aqgfyhBSf/

করোনা যুদ্ধে সম্মুখ সারির সৈনিক স্বাস্থ্যকর্মীরা। সেবা দিতে গিয়ে প্রায় দেড়শ চিকিৎসক এবং নার্সকে প্রাণ দিয়েছেন। এর মধ্যে চলতি মাসের প্রথম ১৬ দিনেই প্রাণ গেছে ১৩ জন চিকিৎসকের। ভয়াবহ এই মহামারীর বিরুদ্ধে টানা যুদ্ধ করতে গিয়ে অনেকেই আজ ক্লান্ত, মানসিকভাবে বিপর্যস্ত। শুধু নিজেদের নয়, পরিবারের সদস্যদের জীবনও ঝুঁকিতে ফেলেছেন অনেকে। গত বছর করোনার প্রথম ঢেউয়ে চিকিৎসকদের এই ত্যাগ বিবেচনায় নিয়ে প্রণোদনা ঘোষণা করে সরকার। যদিও এক বছরে এই প্রণোদনা পেয়েছেন মাত্র একজন চিকিৎসক।

উল্লেখ্য, সরকার গত ১ জুলাই করোনা রোগীদের চিকিৎসাসেবায় নিয়োজিত চিকিৎসক, নার্স ও অন্য স্বাস্থ্যকর্মীদের বিশেষ প্রণোদনা দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেয়। এর আগে ৭ এপ্রিল প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এক ভিডিও কনফারেন্সে বলেছিলেন, ‘মার্চ মাস থেকে যাঁরা কোভিড-১৯-এর বিরুদ্ধে সরাসরি যুদ্ধ করছেন, সরকার তাঁদের উৎসাহ দেওয়ার জন্য বিশেষ প্রণোদনা দেবে। এ ছাড়া দায়িত্ব পালনের সময় কেউ কোভিড-১৯-এ আক্রান্ত হলে তাঁদের জন্য ৫ থেকে ১০ লাখ টাকার একটি স্বাস্থ্যবিমা থাকবে। কেউ মারা গেলে স্বাস্থ্যবিমার পরিমাণ পাঁচ গুণ বেশি হবে।’
এমন আরো তথ্য পেতে চোখ রাখুন: https://www.facebook.com/rajtvbd

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button