স্বাস্থ্য

টিকার দ্বিতীয় ডোজের প্রয়োগ শুরু ৭ এপ্রিল

করোনার ভ্যাকসিনের দ্বিতীয় ডোজ আগামী ৭ এপ্রিল থেকে দেওয়া শুরু হবে জানিয়েছেন  স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণমন্ত্রী জাহিদ মালেক। আজ মঙ্গলবার (২৩ ফেব্রুয়ারি) সচিবালয়ে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের সভা শেষে সাংবাদিকদের তিনি এ তথ্য জানান। এখন পর্যন্ত ২৩ লাখ ৮০ হাজার মানুষকে ভ্যাকসিন দেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী ডা. জাহিদ মালেক। এছাড়া রেজিস্ট্রেশন হয়েছে ৩৬ লাখের বেশি।

প্রসঙ্গত, গত ২৭ জানুয়ারি প্রাথমিকভাবে করোনার টিকার প্রথম ডোজের কার্যক্রম হয়। ওই দিন বিকাল সাড়ে ৩টায় রাজধানীর কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালে গণভবন থেকে ভার্চুয়ালি যুক্ত হয়ে এ কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এদিন প্রথম টিকা নেন কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালের নার্স রুনু ভেরোনিকা কস্তা। এ সময় চিকিৎসক, পুলিশ ও সেনাবাহিনীসহ পর্যায়ক্রমে আরও ২৯ সম্মুখযোদ্ধার দেহে করোনার টিকা প্রয়োগ করা হয়।

এর আগে গত ২১ জানুয়ারি ভারতের উপহার হিসেবে পাঠানো ২০ লাখ ডোজ করোনা ভ্যাকসিন ঢাকা পৌঁছায়। গত ২৫ জানুয়ারি সকাল ১১টার দিকে ভারতের সেরাম ইনস্টিটিউট থেকে সরকারের কেনা অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকার করোনা ভ্যাকসিনের ৫০ লাখ ডোজ দেশে পৌঁছায়।

এদিকে আজ মঙ্গলবার (২৩ ফেব্রুয়ারি) রাত ১২টা ২২ মিনিটে ভারতের স্পাইসজেট এসজি-০০৬৩ ফ্লাইটটি হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে ভারতের সেরাম ইনস্টিটিউট থেকে অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকার ভ্যাকসিনের দ্বিতীয় ডোজের চালান দেশে পৌঁছেছে। এ দফায় মোট ২০ লাখ ডোজ ভ্যাকসিন দেশে এসেছে।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের তথ্য মতে, করোনার সংক্রমণ ঠেকাতে দেশে ২২ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত ভ্যাকসিনের  প্রথম ডোজ গ্রহণ করেছেন ২৩ লাখ ৮ হাজার ১৫৭ জন মানুষ। এদের মধ্যে ১৫ লাখ ১৮ হাজার ৭১৫ জন পুরুষ এবং ৭ হাজার ৮৯ হাজার ৪৪২ জন নারী রয়েছেন।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী জানান, ডাবল ডোজ পাওয়ার পরও বিদেশ যেতে হলে কোভিড নেগেটিভ সনদ নিয়ে যেতে হবে। শিক্ষার্থীদের মধ্যে ১৮ এর নিচে বয়স যাদের তারা টিকা পাবে না, যাদের বয়স বেশি তাদের ব্যাপারে সরকারি সিদ্ধান্ত অনুযায়ী টিকা দেওয়া হবে।

এমন আরো তথ্য পেতে চোখ রাখুন: http://facebook.com/rajtvbd

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button